সাকিব-তামিমের দুই হাজারের রেকর্ড

পরিসংখ্যান কিংবা দলের জয়ে অবদান- বাংলাদেশের অন্য সব ব্যাটসম্যানের চেয়ে এগিয়ে সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডে ক্রিকে'টে সর্বোচ্চ রানের মালিকও এ দু’জন। তামিম পেরিয়ে গেছেন সাত হাজার রানের কোটা, সাকিব আছেন সাড়ে ছয় হাজারের ঘরে।

আর এবার জুটি বেঁধে দু’জন গড়লেন দারুণ এক কী'র্তি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে লিটন দাস ও নাজমুল হোসেন শান্তর ধারাবাহিক হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পর চতুর্থ উইকে'টে ৯৩ রানের জুটি গড়েছেন তামিম ও সাকিব।

এর সুবাদে ওয়ানডে ক্রিকে'টে সাকিব-তামিম জুটির মোট রান গিয়ে দাঁড়িয়েছে ২০৮১-তে। আগের দুই ম্যাচে তাদের জুটিতে এসেছিল যথাক্রমে ২৬ ও ৩২ রান। আজ জুটিতে ১২ রান নেয়ার মাধ্যমেই পূরণ হয়ে গেছে ২ হাজার রানের মাইলফলক।

বাংলাদেশের হয়ে অবশ্য এটিই প্রথম জুটি বেঁধে ২ হাজার রানের কী'র্তি নয়। বরং জুটিতে ৩ হাজার রানের রেকর্ডও রয়েছে সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহীমের। আজকের ম্যাচের আগে ৮৬ ইনিংসে সাকিব-মুশফিকের জুটির মোট রান ৩১৫৬।

তারা দুজন মিলে গড়েছেন ১৯টি পঞ্চাশোর্ধ্ব ও ৬টি শতরানের জুটি। বাংলাদেশ ক্রিকে'টে জুটি বেঁধে এটিই সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। এ ছাড়া জুটিতে ২ হাজার রানের রেকর্ড রয়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মুশফিকুর রহীমেরও।

ব্যক্তিগত স'ম্পর্কে দুই ভায়রা ভাই ওয়ানডেতে ৬০ ইনিংসে একসঙ্গে ব্যাট করে যোগ করেছেন ২১৪৪ রান। তাদের একসঙ্গে মিলে রয়েছে ৩টি সেঞ্চু'রি ও ১৭টি হাফসেঞ্চু'রির জুটি। মাত্র ৪৪ ইনিংসে বাংলাদেশের পক্ষে তৃতীয় জুটি হিসেবে ২ হাজার রান পূরণ করে ফেলেছেন সাকিব ও তামিম।

বিশ্ব ক্রিকে'টের হিসেবে অবশ্য বাংলাদেশ বেশ পিছিয়ে। আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে জুটি বেঁধে সর্বোচ্চ ৮২২৭ রান করেছেন সৌরভ গাঙ্গু'লি ও শচিন টেন্ডুলকার। এ রান করতে তারা খেলেছেন ১৭৬ ইনিংস। এছাড়া দুই ব্যাটসম্যানের জুটিতে ৩ হাজার রানের কী'র্তি রয়েছে মোট ৪০টি। যেখানে সাকিব-মুশফিক জুটির অবস্থান ৩১তম।

Back to top button