বুধবার হাসপাতাল ছাড়বেন সৌরভ

এলো সৌরভ প্রে'মীদের জন্য স্বস্তির খবর ৷ সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী বুধবারের মধ্যেই হাসপাতাল থেকে ছুটি দেওয়া হতে পারে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে। বাড়িতে ফিরলেও আপাতত তিনি চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণেই থাকবেন।

সোমবার ৯ সদস্যদের মেডিক্যাল বোর্ডের বৈঠকের পর হাসপাতাল থেকে এমন আশার কথা বলা হয়৷ সৌরভেরশা’রীরিক পরিস্থিতি নিয়ে সোমবার (৪ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টায় আলোচনায় বসেছিলেন নয় সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড৷ বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ দেবী শেঠি-সহ দেশ ও বিদেশের বিশিষ্ট চিকিৎসকেরা আলোচনায় ছিলেন৷ ভিডিও কনফারেন্সে আলোচনায় অংশ নিয়েছিলেন বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ দেবী শেঠি এবং আর কে পণ্ডা ৷

চেন্নাই থেকে ফোনে ছিলেন স্যামুয়েল ম্যাথু ৷ নিউইয়র্ক থেকেও ছিলেন এক চিকিৎসক৷ ইন্টারভেনশনাল কার্ডিয়োলজিস্ট অশোক শেঠের সঙ্গেও আলোচনা করেছেন হাসপাতা'লের মেডিক্যাল বোর্ডের চিকিৎসকেরা৷ সৌরভের পরিবারের সদস্যরাও বৈঠকে হাজির ছিলেন৷ সৌরভেরশা’রীরিক পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনা হয় ৷

বিস্তারিত আলোচনার পর এই মুহূর্তে সৌরভের হার্টের বাইপাস সার্জারির প্রয়োজন নেই বলে মনে করেন চিকিৎসকরা ৷ এদিন মেডিক্যাল বোর্ডের আলোচনার পর উডল্যান্ডস হাসপাতা'লের সিইও রূপালি বসু জানান, সৌরভের বাকি দু’টি ধমনীতে অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ তবে তা এখনই হচ্ছে না ৷

সর্বসম্মতভাবে অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টির প্রক্রিয়া পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ সেই অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি কবে হবে, তা সৌরভেরশা’রীরিক অবস্থার উপর নির্ভর করে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে৷ মনে করা হচ্ছে, মঙ্গলবার দেবী শেঠি দেখার পরই এ ব্যাপারে সিদ্ধা্ন্ত নেওয়া হবে৷

সৌরভের হৃৎপিণ্ডের ৩টি ধমনীতে ‘ব্লক’ ধ'রা পড়েছে৷ ইতিমধ্যেই ডান দিকের ধমনীতে অ্যাঞ্জিয়োপ্লাস্টি করে স্টেন্ট বসানো হয়েছে৷ বাঁ-দিকের দু’টি ধমনীতে অ্যাঞ্জিয়োপ্লাস্টি করতে হবে কি না, তা এফএফআর পরীক্ষা করে দেখা হবে৷ তার পরেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে আরও দু’টি স্টেন্ট বসানোর বিষয়ে৷ চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, পারফিউশন স্ক্যান করে দেখা হবে, ধমনীর ব্লক হৃৎপিণ্ডের পেশিকে কতটা ক্ষতিগ্রস্ত করেছে৷ হৃদ্‌রোগ বিশেষজ্ঞ সরোজ মণ্ডলের নেতৃত্বে সৌরভের চিকিৎসা চলছে৷

Back to top button