মাশরাফিকে বাদ দেওয়ার কারণ জানালেন প্রধান নির্বাচক

জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানিয়েছেন, আগামী ওয়ানডে বিশ্বকাপের কথা বিবেচনা করেই মাশরাফি ওয়ানডে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশের সর্বশেষ ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে অধিনায়কত্ব থেকে ইতি টানা মাশরাফি

সুযোগ পাননি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের জন্য ঘোষিত বাংলাদেশ প্রাথমিক দলে।সোমবার (৪ জানুয়ারি) ক্যারিবীয় সিরিজের জন্য টেস্ট ও ওয়ানডের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেন নির্বাচকরা। এ সময় প্রধান নির্বাচক জানান মাশরাফিকে দলে না রাখার কারণ।

দল ঘোষণার আগে মাশরাফির সাথে তার কথা হয়েছে জানিয়ে নান্নু বলেন, ‘আমা'র যতটুকু বলার আছে ওকে বলে দিয়েছি। আমা'র সাথে ওর আলোচনা হয়েছে। কী' আলোচনা হয়েছে আপনাদেরকে তো আমি বলতে পারব না। যতটুকু কথা হয়েছে খুব ভালোই কথা হয়েছে।’

মাশরাফিকে বাদ দেওয়ার পেছনে মূলত ২০২৩ বিশ্বকাপের দল গোছানোর ভাবচাই বড় ভূমিকা রেখেছে। নান্নু আরও জানান, ‘এখানে অনেক ইস্যুই এসেছে। টিম ম্যানেজমেন্ট আমাদের পরিকল্পনা দিয়েছে। আম'রাও আমাদের পরিকল্পনা নিয়ে অনেক আলোচনা করেছি। আলোচনার পরেই আম'রা সিদ্ধান্তের মধ্যে এসেছি। দেশের কথা চিন্তা করে, আগামীতে এগিয়ে যাওয়ার কথা চিন্তা করেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তরুণদের তো সুযোগ দিতে হবে।’

মাশরাফির ভবিষ্যৎ তাহলে কী' হবে, মাশরাফি জাতীয় দলে আর খেলবেন কি না- এসব বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি নান্নু। নান্নু বলেন, ‘ও তো খেলা চালিয়ে যাবে। এটা পুরোপুরি ওর উপর। ঘরোয়া ক্রিকে'টে খেলবে। এখানে আম'রা তো বলতে পারি না ওর পারফরম্যান্স কী' হবে না হবে। ওর প্রতি আমাদের সম্মান সবসময় আছে।

আমাদের দেশের জন্য অনেক কিছু দিয়েছে। এটা কঠিন এক সিদ্ধান্ত ছিল। তারপরও বাস্তবতা আমাদের মানতেই হবে, সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। সবাই মিলে সম্মিলিতভাবে আম'রা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। মাশরাফিকে অফ করতে হয়েছে। এই যে নতুনভাবে চলা… ওর জায়গায় যে-ই খেলবে তার জন্য বিরাট এক সুযোগ। একজন খেলোয়াড়কে আমাদের গড়ে তুলতে হবে।’

Back to top button