চলেই গেলেন কিংবদন্তি ফুটবলার বাদল রায়

মৃ'ত্যুর কাছে হার মানলেন বাংলাদেশের কিংবদন্তি ফুটবলার এবং বর্ষীয়ান ফুটবল সংগঠক বাদল রায়। আজ বিকেল ৫টা ৩৫ মিনিটে বাংলাদেশ মেডিকেলে মৃ'ত্যুবরণ করেন তিনি।

গত ৫ নভেম্বর গুরুতর অ'সুস্থ হয়ে আজগর আলী হাসপাতা'লের আইসিইউতে ভর্তি হন জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারপ্রাপ্ত সাবেক এই ফুটবলার। ১১ নভেম্বর অবস্থার অবনতি হলে তাকে আজগর আলী হাসপাতাল থেকে নেয়া স্কয়ার হাসপাতা'লের আইসিইউতে।

ওই সময় বাদল রায়ের স্ত্রী' মাধুরী রায় জানিয়েছিলেন, ‘হঠাৎ করে ওর (বাদল রায়) কিডনিতে সমস্যা দেখা দেয়। ক্রিয়েটিনিং বেড়ে গেছে। র'ক্তচাপ কমে গেছে। এখন ডায়ালাইসিস লাগবে। তাই স্কয়ার হাসপাতা'লে নিয়ে যাচ্ছি।’

বাদল রায় গত ১৩ আগস্ট করো'নাভাই'রাসে আ'ক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি চিকিৎসকের পরাম'র্শে বাসায় থেকেই চিকিৎসা করে করো'নামুক্ত হন। বৃহস্পতিবার হঠাৎ অ'সুস্থ হয়ে পড়লে তাকে আসগর আলী হাসপাতা'লে নেয়া হয় এবং ডাক্তাররা তাকে দ্রুত আইসিইউতে নেন।

২০১৭ সালে মস্তিষ্কে র'ক্তক্ষরণ হলে বাদল রায়ের জীবন সংকটাপন্ন হয়ে পড়েছিল। বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাদল রায়কে চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর পাঠিয়েছিলেন। সেখানে দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিয়ে তিনি সুস্থ হয়ে দেশে ফেরেন।

বাদল রায় বর্ণাঢ্য ফুটবল ক্যারিয়ারে মোহামেডানের জার্সিতে খেলেছেন ১২ বছর। লাল-সবুজ জার্সি গায়ে জাতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন পাঁচ বছর। ক্রীড়াঙ্গনে তিনি মোহামেডানের বাদল রায় হিসেবেই বেশি পরিচিত।

Back to top button