২০২১ সালে ভ'য়াবহ দুর্ভিক্ষের সম্মুখীন হবে বিশ্ব: বিসলি

আগামী বছর ভ'য়াবহ দুর্ভিক্ষের সম্মুখীন হবে বিশ্ব এ মন্তব্য করেছেন নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচীর প্রধান ডেভিড বিসলি। ইউরো নিউজর প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

এসোসিয়েটেড প্রেসকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে এ কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, ২০২০ সালের চেয়ে ২০২১ সাল আরো ভ'য়াবহ হতে চলেছে। সম্প্রতি নরওয়ের নোবেল কমিটি প্রকল্পের কাজ খতিয়ে দেখার পর সতর্ক করে বলেছে, ২০২১ সালে আরও ভ'য়াবহ দুর্যোগ আসতে পারবে যার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।

ডেভিড বিসলি বলেন, মা'র্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ও কোভিড মহামা'রী বিশ্বজুড়ে সংবাদের শিরোনাম দখল করে রাখার ফলে বিশ্ব খাদ্য সংকটের বিষয়ে এই মুহূর্তে সচেতনতার অভাব রয়েছে। যথোপযু'ক্ত ব্যবস্থা না নিলে আর কয়েক মাসের মধ্যে একই সঙ্গে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ একাধিক দুর্ভিক্ষের সম্মুখীন হবে।

তিনি আরো বলেন, ২০২০ সালেই ভ'য়াবহ দুর্ভিক্ষের মুখোমুখি হতে পারত বিশ্ব। কিন্তু মহামা'রী মোকাবেলায় বিশ্বনেতাদের গৃহীত উদার আর্থিক প্যাকেজ, ঋণশোধ প্রক্রিয়ায় মেয়াদ বৃদ্ধি এবং আর্থিক অনুদানের কারণে তা এড়ানো গিয়েছে। কিন্তু ২০২১ সালে এই পরিমাণ আর্থিক কর্মসূচী গৃহীত হবে কি না তা অনিশ্চিত।

তিনি সতর্ক করে বলেন, মহামা'রির দ্বিতীয়, তৃতীয় সংক্রমণ রুখতে কিছু দেশ পুনরায় লকডাউন দিতে পারে, যা অর্থনৈতিক খাতে মা'রাত্মক প্রভাব ফেলবে। বিশেষ করে নিম্ন ও মধ্যবিত্ত দেশগুলোতে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

দূর্ভিক্ষ মোকাবেলায় ডব্লিউএফপি নোবেল কমিটির সঙ্গে বিশ্বনেতাদের ভা'র্চুয়াল ও প্রত্যক্ষ আলোচনা, বিভিন্ন দেশের পার্লামেন্টে ভাষণ এবং আলোচনার মাধ্যমে প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানায়। ডেভিড বিসলি জানান, ডব্লিউএফপির তহবিলে থাকা অর্থের সঙ্গে ২০২১ সালে সম্ভাব্য দুর্ভিক্ষ এড়াতে আরো ১৫০ কোটি মা'র্কিন ডলার প্রয়োজন।

Back to top button