তা'ণ্ডব চালিয়ে টুইটার প্রধানকে কঙ্গনার হু'মকি!

তা'ণ্ডব নিয়ে বিতর্ক চলছেই। আর সেই আ'গুনেই ঘি ঢেলেছিল কঙ্গনা রানাউতের টুইট। বিদ্বেষ ছড়ানোর অ'ভিযোগে অ'ভিনেত্রীর টুইটার হ্যান্ডেলে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করে টুইটার কর্তৃপক্ষ।

তবে এতেও থেমে যাননি বলিউডের ‘কুইন’। পাল্টা আক্রমণে তিনি টুইটারের প্রধান জ্যাক ডোরসেকে হু'মকি দিয়ে বলেন, তোমাদের বেঁচে থাকা দুষ্কর করে দেব।

‘তা'ণ্ডব’ নিয়ে দেশজুড়ে চলা বিতর্কের মাঝে কঙ্গনা তার টুইটে লিখেছিলেন, শুধু হিন্দু ভাবাবেগে নয়, দর্শকদের উপর অ'ত্যাচার করা হচ্ছে। এমনকি ‘তা'ণ্ডব’ এর নির্মাতাদের অবিলম্বে গ্রে'ফতারেরদা’বিও জানিয়েছিলেন কঙ্গনা।

এখানেই শেষ নয়। আরো একটি টুইটে কঙ্গনা লেখেন, ‘ভগবান কৃষ্ণও শি'শুপালের ৯৯টি ভুল ক্ষমা করে দিয়েছিলেন। প্রথমে শান্তি, তারপর ক্রান্তি। এবার ওদের মা'থা কে'টে নেওয়ার সময় এসেছে।…জয় শ্রী কৃষ্ণ।

পরে, আরো একটি টুইটে কঙ্গনা লেখেন, ‘যে স্বাধীনচেতাগণ মায়ের কোলে ভ'য়ে লুকিয়ে কাঁদছেন, তারা শুনুন। আমি তোমাদের মা'থা কা'টার কথা বলিনি। আমিও জানি পোকামাকড় মা'রার জন্য কী'টনাশকের প্রয়োজন হয়।’

যদিও পরে কঙ্গনা টুইটটি মুছে দেন। তবে কঙ্গনার বি'রুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়ানোর অ'ভিযোগ করেন নেটিজেনদের একাংশ। একাধিক অ'ভিযোগের পরই অ'ভিনেত্রীর টুইটার হ্যান্ডেলটিতে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করে টুইটার কর্তৃপক্ষ।

তার টুইটার অ্যাকাউন্টের উপর লাগাম পরানোর পর চটে গিয়ে অ'ভিযোগকারী ও টুইটার কর্তৃপক্ষের বি'রুদ্ধে বিষোদ্গার করেন কঙ্গনা। পাল্টা হু'মকি দিয়ে লেখেন, তাকে ভা'র্চুয়াল জগতে থামানো হলেও বাস্তবে তিনি থামবেন না। সকলের বেঁচে থাকা দুষ্কর করে দেবেন।

Back to top button