চিত্রনায়িকা শাবনূর হয়ে গেলেন নাজিফা জামান!

চিত্রনায়িকা শাবনূরের একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ঘুরে বেড়াচ্ছিল ফেসবুকে। মিডিয়ার লোকজন পেলেই রিকোয়েস্ট পাঠাচ্ছিল। এমন সব হাই প্রোফাইল মানুষকে সুকৌশলে সেই অ্যাকাউন্টে যু'ক্ত করা হয়েছিল।

যার ফলে সাধারণ অ'ভিনয় শিল্পী থেকে সাংবাদিক সকলেই সেই প্রোফাইলে যু'ক্ত হয়ে যাচ্ছিলেন। এমন সব পোস্ট আসছিল- যাতে কোনোভাবেই অনুমান করা সম্ভব নয় ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি শাবনূরের নয়।

বিষয়টি নিয়ে শাবনূরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল। তিনি কালের কণ্ঠকে বলেছিলেন তার কোনো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নেই। একটি ছিল, প্রয়োজনে খুলেছিলেন কিন্তু সেটি এখন নিস্ক্রিয়। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ইনস্টাগ্রামে তিনি সক্রিয়।

যে ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি খুলে শাবনূরকে বির'ক্ত করা হচ্ছিল কালের কণ্ঠে ফেসবুকে আমা'র কোনো অ্যাকাউন্ট নেই : শাবনূর শিরোনামে সংবাদ প্রচার হবার পরে ফেসবুক অ্যাকাউন্টটির নাম পরিবর্তন হয়ে গেছে।

এছাড়াও ফেসবুক থেকে সকল ছবি ও ভিডিও সরিয়ে ফেলা হয়েছে। বর্তমানে ওই অ্যাকাউন্টটি নাজিফা জামান নামে পরিচালিত হচ্ছে। লুকিয়ে ফেলা হয়েছে ফলোয়ার সংখ্যা। তবে বন্ধু তালিকায় এখনো প্রচুর মিডিয়াকেন্দ্রিক লোকজন রয়েছেন।

মিডিয়া জগতের কয়েকজন সাংবাদিক বলছেন, কোনো উদ্দেশ্য নিয়ে ওই ভু'য়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি খোলা হয়েছে। প্রতারণা ছাড়া আর কোনো উদ্দেশ্য থাকতে পারে না।

একই কথা পূর্বেই কালের কণ্ঠকে বলেছেন শাবনূরের বোন ঝুমুর। শাবনূরের ইনস্টাগ্রামে যু'ক্ত হবার আহবান জানিয়ে শাবনূরের ছোট বোন কাজী জেসিকা জেরিন ঝুমুর কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আপুর নামে ফেসবুকে অসংখ্য অ্যাকাউন্ট ও পেইজ রয়েছে। সেসব ভু'য়া।

শুনেছি আপুর (শাবনূর) শুভাকাঙ্ক্ষীরা সেই অ্যাকাউন্ট'কে শাবনূরের অ্যাকাউন্ট মনে করছেন। এতে বড় ধরনের সমস্যা হতে পারে, সবাই সতর্ক থাকতে হবে। শুনলাম একটি সক্রিয় অ্যাকাউন্ট ফেসবুকে শাবনূরের ছবি ও ভিডিও শেয়ার করছে।

নিয়মিত পোস্ট দিচ্ছে। বিভিন্নজনের জন্ম'দিনে শুভেচ্ছা জানিয়ে কৌশলে নিজের উদ্দেশ্য হাসিল করার চেষ্টা করছে। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। চাইলে আপুর সঙ্গে ইনস্টাগ্রামে যোগাযোগ করতে পারেন। সেখানে তাদের প্রিয় শাবনূরকে পাওয়া যাবে।

Back to top button