সিনেমা নেই, প্রভাব খাটাতে রাজনীতিতে শ্রীলেখা!

কলকাতার হট সেনসেশন অ'ভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র বরাবরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন তীর্যক মন্তব্য ও ভিডিও পোস্ট করে আলোচনায় থাকতে পছন্দ করেন।

তার যে কোনো পোস্টেই তোলপাড় শুরু হয়ে যায় ওয়েব দুনিয়ায়। আলোচনার কেন্দ্রে চলে আসেন এই নায়িকা। সেই ধারাবাহিকতায় আবারও তিনি আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে।

এবার রাজনীতিতে নাম লেখাচ্ছেন এই সেনসেশন, টলিউডের বাতাসে ভাসছে এমনই গুঞ্জন। সম্প্রতি কলকাতার বরাহনগরে ভা'রতীয় কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিএম) পক্ষ থেকে একটি ফ্রি কোচিং ক্লাসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন নায়িকা। এরপর থেকেই গুঞ্জন, এই দলে তিনি নাম লেখাতে চলেছেন।

কিন্তু এমন গুঞ্জনের ব্যাপারে শ্রীলেখার জবাব, ‘এরকম মনে হচ্ছে? তাহলে তাই। আমি কট্টর বামপন্থী। শুধু আজ নয়, বরাবরই। সে কথা প্রথম প্রকাশ্যে আসে সৌরভ পালধির একটি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার পর। বাম নেতারাও জানেন আমা'র সম'র্থন রয়েছে তাদের প্রতি।’

ভা'রতের অনেক অ'ভিনয়শিল্পীরাই এখন রাজনীতির দিকে ঝুঁকছেন। তারা কেউ নাম লেখাচ্ছেন সরকারি দলে, কেউ আবার প্রধান বিরোধী দলে। তবে শ্রীলেখা যেন উল্টো হাওয়ার পন্থী।

এ বিষয়ে অ'ভিনেত্রীর ভাষ্য, ‘হঠাৎ করে সবুজ বা গেরুয়া রঙে নিজেকে রাঙিয়ে নেয়া যায়। কিন্তু লাল পতাকাকে সম'র্থন করতে গেলে সেটা হঠাৎ করে হয় না। তার জন্য শিক্ষার প্রয়োজন। কারণ, এই একটি রাজনৈতিক দলই ভীষণ শিক্ষিত।’

তবে শ্রীলেখার রাজনীতিতে নামা'র গুঞ্জনে উঠেছে আরেকটি প্রশ্ন। বর্তমানে তেমন কোনো কাজ নেই এই নায়িকার হাতে। শুরু থেকে যে ‘মীরাক্কেল’ শোয়ের তিনি বিচারক ছিলেন, সেখান থেকেও এ বছর বাদ দেয়া হয়েছে তাকে। তাই ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের প্রভাব বাড়াতেই শ্রীলেখা রাজনীতিতে আসছেন বলে ধারণা অনেকের।

Back to top button