শাহরুখ খানের কলার চেপে ধরেন সালমান, শুরু হয় হাতাহাতি!

দুজনে বেশ ভালো বন্ধু। একে অন্যের সিনেমায় অ'তিথি হয়ে দর্শকের আগ্রহ বাড়ান। পারিবারিক অনুষ্ঠানেও একে অ'পরকে নিমন্ত্রণ করেন, ছুটেও যান। কাজ দেখে প্রশংসায় ভাসান।

অনেকটা সময় দা কুমড়ার স'ম্পর্ক ছিল বলিউডের জনপ্রিয় করণ-অর্জুন জুটি খ্যাত শাহরুখ খান ও সালমান খানের মধ্যে। আনন্দবাজার আজ (২৩ নভেম্বর) এক ফটো ফিচারে প্রকাশ করেছে এ দুই তারকার বৈরী স'ম্পর্কের অজানা কিছু কথা। যেখানেদা’বি করা হয়েছে, এক পার্টিতে রেগে গিয়ে শাহরুখের কলার চেপে ধরেছিলেন সালমান। দুজনের মধ্যে হাতাহাতিও শুরু হয় প্রকাশ্যেই।

২০০৮ সালের ঘটনা। ক্যাটরিনা কাইফের জন্ম'দিন উপলক্ষে আয়োজিত পার্টিতে বিবাদে জড়িয়ে পড়েছিলেন দুই খান। এরপর গোটা বলিউডই দু’টি শি'বিরে ভাগ হয়ে গিয়েছিল। আজ দুই তারকার মধ্যে সৌজন্য বজায় থাকলেও ঝগড়ার স্মৃ'তি ভোলেননি কেউই। শাহরুখ এবং সালমান ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন প্রায় একই সঙ্গে। প্রথম থেকেই তাদের মধ্যে সুস'ম্পর্ক বজায় ছিল। কিন্তু তাদের স'ম্পর্কের সুর প্রথমবার কাটে ঐশ্বরিয়া রাইকে ঘিরে।

সালমানের সঙ্গে ঐশ্বরিয়ার প্রে'ম যখন তুঙ্গে, তখনও শাহরুখের সঙ্গে অ্যাশ এবং সল্লু দু’জনেরই স'ম্পর্ক ভালো ছিল। ‘চলতে চলতে’ সিনেমায় ঐশ্বর্যকেই প্রথম সুযোগ দেন শাহরুখ। কিন্তু শেষ অবধি সালমানের আ'পত্তিতে সেই ছবিতে কাজ করতে পারেননি ঐশ্বর্য। সালমান-ঐশ্বরিয়ার ব্রেক আপের সময় ঐশ্বরিয়ার পাশে ছিলেন শাহরুখ। এরপর সালমানের সঙ্গে তার স'ম্পর্কে ফাটল ধরে। দু’জনে ঝামেলায়ও জড়িয়ে পড়েন।

২০০৪ সালে ফারহা খানের বিয়ের অনুষ্ঠানে বিবাদে জড়ান তারা। তবে সেটি মিটিয়ে নেন দুই তারকাই। এরপর ২০০৮ সালে ক্যাটরিনার জন্ম'দিনে তারা হাতাহাতিতে লিপ্ত হন। ‘নমস্তে লন্ডন’, ‘সিং ইজ কিং’, ‘ওয়েলকাম’ ‘পার্টনার’সহ ক্যাটরিনার বেশকিছু ছবি পর পর হিট হয় বক্স অফিসে। ক্যাটরিনার সে বছরের জন্ম'দিন স্ম'রণীয় করে রাখতে ১৬ জুলাই বান্দ্রার এক রেস্তোরাঁয় জমকালো পার্টির আয়োজন করেন সালমান।

তার আমন্ত্রণে হাজির ছিলেন টিনসেল টাউনের বহু তারকা। পার্টিতে শাহরুখের পৌঁছতে কিছুটা দেরি হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা পরে জানান, ততক্ষণে সালমান নে'শায় বুঁদ। ইন্ডাস্ট্রির অন্দরমহলে কান পাতলে শোনা যায়, পার্টিতে ঢুকেই স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে রসিকতা করতে থাকেন শাহরুখ। কিন্তু সে সময় তার রসিকতা মোটেও ভালো'ভাবে নেননি সালমান।

পার্টিতে শাহরুখকে একটি ছবির পরিকল্পনাও জানান সালমান। তিনিই সেই ছবি তৈরি করবেন বলে ভেবেছিলেন। তিনি সেখানে শাহরুখকে অ'তিথি শিল্পীর ভূমিকায় কাজের জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু শাহরুখ সেই প্রস্তাব শোনামাত্র ফিরিয়ে দেন। তার এই প্রত্যাখ্যান ভালো লাগেনি সালমানের। বাগবিতণ্ডার মধ্যেই শাহরুখ নাকি নাম না করে পরোক্ষে ঐশ্বরিয়ার প্রসঙ্গ তোলেন। প্রাক্তনকে নিয়ে সরাসরি ইঙ্গিতে নিজেকে আর সামলে রাখতে পারেননি সালমান।

অ'ভিযোগ, পার্টিতে সবার সামনেই তিনি শাহরুখের কলার চেপে ধরেন। স্থান-কাল-পাত্র ভুলে দুই তারকার মধ্যে নাকি হাতাহাতিও শুরু হয়ে যায়। সে সময় গৌরী খান, ক্যাটরিনা কইফ এবং আমির খান চেষ্টা করেও তাদের নিরস্ত করতে পারেননি। দুই তারকার বিবাদের খবর হু হু করে ছড়িয়ে পড়ে। মুহূর্তের মধ্যে বান্দ্রার ওই রেস্তোরাঁর সামনে সংবাদ মাধ্যমের ভিড় জমে যায়।

ক্যামেরায় ধ'রাও পড়ে গৌরীকে নিয়ে পার্টি ছেড়ে বেরিয়ে যাচ্ছেন বি'ধ্বস্ত শাহরুখ। অন্যদিকে সালমানের পাশে বসে গাড়িতে কাঁদছেন ক্যাটরিনা। ঝগড়ার পর বলিউড কার্যত দু’টি শি'বিরে ভাগ হয়ে যায়। কারিনা কাপুর, সাইফ আলি খান, অক্ষয় কুমা'রের মতো তারকারা ছিলেন সালমানের পাশে। আবার করণ জোহর, যশ চোপড়া, জাভেদ আখতাররা ঝুঁকেছিলেন শাহরুখের দিকে।

এরপর দীর্ঘদিন শাহরুখ-সালমান একে অন্যকে এড়িয়ে যেতেন। শেষে ২০১৩ সালে তারা মুখোমুখি হন বাবা সিদ্দিকির দেয়া ইফতার পার্টিতে। পাঁচ বছর পরে একই ফ্রেমে ধ'রা দেন বিবদমান দুই তারকা। একে অন্যকে জড়িয়ে ধরেন। ২০১৪ সালে সালমানের বোন অর্পিতার বিয়েতে শাহরুখ-সালমানের ছবি ভাই'রাল হয়। দু’জনের হৃদ্যতাপূর্ণ শরীরী ভাষা বুঝিয়ে দেয় এবার তারা ঝগড়া মিটিয়ে নিতে চান। ধীরে ধীরে তাদের স'ম্পর্ক সহ'জ হয়ে ওঠে।

Back to top button