আবেগ আপ্লুত হয়ে স্ত্রী'কে নিয়ে যা বললেন ফারুক

ঢাকাই সিনেমা'র কালজয়ী নায়ক ও জাতীয় সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান ফারুক করোনাভাই'রাসে আ'ক্রান্ত। তাকে সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতা'লে ভর্তি করা হয়। অ'সুস্থ ফারুকের সেবার দিন-রাত এক করছেন তার স্ত্রী' ফারহানা ফারুক।

‘ভাগ্য করে এমন জীবনসঙ্গী পেয়েছি। ওকে নিয়ে বলার ভাষা পাচ্ছি না। দিনের পর দিন সে আমা'র সেবা করে যাচ্ছে জীবন মৃ'ত্যুর ভ'য় এক করে দিয়ে। আল্লাহর কাছে আমি প্রার্থনা করি তিনি যেন আমা'র এই প্রিয়তমা স্ত্রী'র সহায় থাকেন’- এভাবেই আপ্লুত হয়ে স্ত্রী' ফারহানা ফারুককে প্রশংসায় ভাসালেন ঢাকাই সিনেমা'র কালজয়ী নায়ক ও জাতীয় সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান ফারুক।

এই অ'ভিনেতা সম্প্রতি সিঙ্গাপুর থেকে উন্নত চিকিৎসা নিয়ে দেশে ফিরেছিলেন। কয়েকটা দিন ভালোই কাটছিলো। কিন্তু ১৫ নভেম্বর তার শরীরে করো'নাভাই'রাস ধ'রা পড়ে। এরপর তাকে পরদিন সন্ধ্যা ৬টায় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতা'লে ভর্তি করা হয়।

এখানে সার্বক্ষণিক তার সঙ্গী হয়ে ছিলেন স্ত্রী' ফারহানা ফারুক। ভ'য়ঙ্কর ছোঁয়াচে ভাই'রাস কভিড-১৯। সেই ভাই'রাসে আ'ক্রান্ত স্বামীর সেবা করতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করেননি তিনি। নায়ক ফারুককে বাসা থেকে শুরু করে হাসপাতাল; সবখানেই ছায়া হয়ে দেখাশোনা করছেন তিনি।

শনিবার (২১ নভেম্বর) ফারুক বলেন, ‘যে অ'সুখে আ'ক্রান্ত হলাম এর তো আসলে নির্ধারিত কোনো অ'সুখ নেই। চিকিৎসকদের পরাম'র্শে নিয়ম মেনে চলছি, খাবার-ওষুধ খাচ্ছি। কিন্তু আমা'র স্ত্রী' মানবিকতার দারুণ দৃষ্টান্ত স্থাপন করে যেভাবে শি'শুর মতো করো'নাভাই'রাসকে উপেক্ষা করেও আমাকে আগলে রেখেছে, সেবাটা দিয়েছে সেটা আমা'র মানসিক জো'রটাকে বাড়িয়ে দিয়েছে। ওকে নিয়ে আমি ভ'য় পাচ্ছি। সেও করো'নায় আ'ক্রান্ত হয়ে গেছে কি না কে জানে!

যখন সিঙ্গাপুর গেলাম সেখানেও সে চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলে আমা'র সঙ্গে যেন থাকা যায় সবসময় সেই ব্যবস্থা করেছে। এক মুহূর্ত আড়াল করতে চায় না আমাকে। এই বয়সে একজন বৃদ্ধ স্বামীর কাছে স্ত্রী'র এই ভালোবাসা যে কত অমূল্য সেটা আসলে ভাষায় বোঝানো মুশকিল। আল্লাহ ওকে নেক হায়াত দান করুক। ওর ভালোবাসা আরও অনেকদিন পাওয়ার জন্য আমি বেঁচে থাকতে চাই। সবাই আমা'র জন্য, আমা'র স্ত্রী' ও সন্তানদের জন্য দোয়া করবেন।’

এদিকে নায়ক ফারুক জানালেন, আজ শনিবার ও তার স্ত্রী' ফারহানা ফারুকের করো'নার নমুনা পরীক্ষার জন্য নেয়া হয়েছে। আগামীকাল পাওয়া যাবে রিপোর্ট। আগের চেয়ে অনেকটাই সুস্থ রয়েছেন ‘সুজন সখী’র সুজন। আশা করছেন স্ত্রী'সহ তার কভিড-১৯ নেগেটিভ আসবে। দ্রুতই তারা বাসায় ফিরবেন।

Back to top button