সর্ব’নাশ! মোবাইল গেমের নে’শা এ কি ভ’য়াব’হ বিপ’দ ডেকে আনল শুভশ্রীর জীবনে!

আজ ১৪ ন’ভেম্বর, কালীপুজো ও শি'শু দিবস উ’পলক্ষে মুক্তি পেল শুভ’শ্রী গাঙ্গুলী ও পরমব্রত চট্টোপা’ধ‍্যায় অ’ভিনীত ‘হাবজি গা’বজি’র ট্রে’লার। ছবি’র পরি’চালনায় রয়েছেন রাজ চ’ক্রবর্তী।

বাস্তব ঘ’টনার উপর ভি’ত্তি করে তৈরি এই ছবি বর্তমান সম’য়ে’র এক জ্বল’ন্ত সমস‍্যার কথা তুলে ধরে। ইঁদুর দৌড়ের এই সময়ে প্রতি’টা মানুষই অ’ত‍্যন্ত ব‍্যস্ত। উপরন্তু বিভিন্ন স্মা'র্ট ফোন ও অ’ত‍্যাধু’নিক গ‍্যা’জেট আরো একে অ’পরের থেকে দূরে সরিয়ে দিচ্ছে মা’নুষকে। আট থেকে আশি স’কলের হা’তেই এখন মো’বাইল।

কিন্তু শি'শু’মনে এই মোবাই’লের সর্ব’না’শা নে'শা যে কি ভ’য়’ঙ্কর বিপদ ডেকে আনছে তা ঘু’ণা’ক্ষরেও বুঝ’তে পার’ছেন না বাবা মায়েরা। হাবজি গাবজির গল্প এক ছোট্ট পরিবা’রকে নিয়ে। মিস্টার বসু, মিসেস বসু ও তাদের ছোট ছে’লে টিপু’কে নিয়ে। স্বামী স্ত্রী' দুজ’নেই কর্ম’রতা, ছে'লেকে দেওয়ার মতো সময় সারাদি’নে পান না তারা।

তাই ছো’ট থেকে এ’কাই ব’ড় হয়ে ওঠে টিপু। শি'শু’মনের একা’কিত্ব কা’টা’নোর জন‍্য ছোট্ট ব’য়সেই বাবা ছে’লের হাতে তু’লে দেন মো’বাইল গেম। সম’স‍্যার শুরু এখান থেকেই। টিপু যত বড় হতে থা’কে তত’ই বাড়’তে থাকে মোবাইল ও গে’মের প্রতি আ’স’ক্তি। বি’ভিন্ন ধরনের মো’বাইল গে’মের মধ‍্যে ডুবে থেকে কম বয়সে’ই হিংস্র হয়ে ওঠে সে।

মো’বাইল ছি’নিয়ে নেও’য়া হলে মা বা’কে সে হু’ম’কি দেয় কোথাও চলে যাও’য়ার। সত‍্যিই কি শে’ষ’মেষ নিজে’দের ভুলে ছে’লেকে হা’রিয়ে ফে’লবেন মি’স্টার ও মিসেস বসু? এই পরিবা’রের মধ‍্য দিয়ে সম’কালী’ন স’ময়ের খুবই বড় এক স’মস‍্যা’র কথা তুলে ধ’রেছেন পরিচা’লক রাজ। বাবা মাদে’র উদ্দে’শে তিনি এই ছবির মাধ‍্য’মেই বা’র্তা দিতে চে’য়েছেন, সন্তা’নের বেড়ে ওঠার বয়সে তাদে’র পাশে থাক’তে। তাদের স’ময় দিতে।

Back to top button