যেসব শিক্ষকদের অবসরভাতা নিয়ে সুখবর দিলেন প্রতিমন্ত্রী

জাতীয়করণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরে যাওয়া ‘যোগ্যতাবিহীন’ শিক্ষকদের অবসরভাতা দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন।

রোববার সংসদে জাতীয় পার্টির শামীম হায়দার পাটোয়ারীর প্রশ্নে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‌‘জাতীয়কৃত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের যোগ্যতাবিহীন শিক্ষকদের অবসরভাতা মঞ্জুরির বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এসব বিদ্যালয়ের যোগ্যতাবিহীন বাদে অন্য শিক্ষকদের অবসরভাতা যথাসময়ে দেয়া হচ্ছে।

বর্তমান সরকার তিন ধাপে নিবন্ধিত বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২৬ হাজার ১৯৩টি জাতীয়করণ করে। এসব বিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষকের কাঙ্ক্ষিত যোগ্যতা ছিল না।

জাতীয়করণের পর শিক্ষক আত্তীকরণের সময় তাদেরকে তিন বছরের মধ্যে যোগ্যতা অর্জন করতে বলা হয়। তারমধ্যে একটি অংশ কাঙ্ক্ষিত যোগ্যতা অর্জনে ব্যর্থ হন। যোগ্যতা অর্জন না করেই অনেকে অবসরেও গেছেন। অবসরে যাওয়া শিক্ষকরা পেনশন-গ্র্যাচুয়িটি পাচ্ছেন না।

চট্টগ্রাম-১১ আসনের এম আবদুল লতিফের প্রশ্নে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্যের উদ্বৃতি দিয়ে বলেন, বর্তমানে সাত বছর তদুর্ধ্ব স্বাক্ষরতার হার ৭৪.৪%। এর মধ্যে পুরুষ ৭৬.৫% এবং মহিলা ৭২.৩%। বর্তমানে ১৫ বছর তদুর্ধ্ব স্বাক্ষরতার হার ৭৪.৭%। এর মধ্যে পুরুষ ৭৭.৪% এবং মহিলা ৭১.৯%।’

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়।

Back to top button