এইচএসসির ফল প্রকাশ ২৮ জানুয়ারির মধ্যে

এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষার ফলাফল ২৮ জানুয়ারির (বুধবার) মধ্যে প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইস'লাম।

সোমবার (১১ জানুয়ারি) মন্ত্রিসভা'র বৈঠক শেষে সংবাদ ব্রিফিং-এ মন্ত্রীপরিষদ সচিব এ তথ্য জানান। সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মন্ত্রিসভা'র বৈঠকে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ইন্টারমিডিয়েট এন্ড সেকেন্ডারি এডুকেশন অর্ডিন্যান্স ১৯৫১ (সংশোধন) অধ্যাদেশ ২০২০ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ফলাফল প্রকাশ করা নিয়ে জটিলতা কা'টাতেই এই অধ্যাদেশ। আগামী অধিবেশনের প্রথম দিনে অধ্যাদেশটি পাশ হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে, মন্ত্রিসভা'র বৈঠকে ২০২০ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশে সোমবার (১১ জানুয়ারি) মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড আইনের সংশোধনীর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সকালে বৈঠকে এ সংক্রান্ত আইনের সংশোধনী পেশ করা হলে তাতে অনুমোদন দেয়া হয়েছে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

এর আগে চলতি বছরের ৪ জানুয়ারি মন্ত্রীসভা'র বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। আর সেখানে আইন সংশোধনের খসড়া অনুমোদন হওয়ার কথা থাকলেও সভা বাতিল হওয়ার ১১ জানুয়ারি সম্ভাব্য তারিখ জানানো হয়।

গত বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মাহবুব হোসেন গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, বিশেষ পরিস্থিতিতে ফলাফল প্রকাশ করতে হলে অধ্যাদেশ জারি করতে হয়। চলতি সপ্তাহে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক না হওয়ায় অধ্যাদেশ জারি করা সম্ভব হয়নি। অধ্যাদেশ জারি হলে মধ্য জানুয়ারির মধ্যে ফল প্রকাশ করা হবে।

উল্লেখ্য, মহামা'রি করো'নার কারণে গতবছরের এইচএসসি পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়নি। সিদ্ধান্ত হয়ে জেএসসি ও এসএসসির ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে দেয়া হবে এইচএসসির ফলাফল। এবারের উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমান পর্যায়ে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১৩ লাখ ৬৫ হাজার ৭৮৯ জন।

৮ মা'র্চ বাংলাদেশে প্রথম করো'না ভাই'রাস শনাক্ত হয়। প্রথম মৃ'ত্যুর খবর আসে ১৮ মা'র্চ। ১৭ মা'র্চ থেকে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। এরপর কয়েক দফায় এই ছুটি বাড়ানো হয়। করো'না পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি চলছে।

Back to top button