জানুয়ারির শেষ সপ্তাহে হতে পারে এইচএসসির ফল

অধ্যাদেশে আ'ট'কে গেছে ২০১৯-২০২০ শিক্ষার্থীদের এইচএসসি’র ফল। পরীক্ষা ছাড়া এ ফল প্রকাশের অধ্যাদেশ আগামী ১১ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ সভায় উঠার কথা রয়েছে। সেখানে অনুমোদন হলে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির অনুমোদনের পর তা জারি করা হবে।

সে হিসেবে জানুয়ারির শেষে বা ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে এইচএসসি-সমমানের ফল প্রকাশ করা হতে পারে। শিক্ষামন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শিক্ষামন্ত্রণালয়ের একজন অ'তিরিক্ত সচিব বলেন, ‘আগামী মন্ত্রিপরিষদ সভায় অধ্যাদেশ অনুমোদন হলেও পরবর্তীতে নানা ধরণের প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হবে।

ভাষাগত ও আইনি অসঙ্গতি রয়েছে কিনা তা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। সেখান থেকে চূড়ান্ত হলে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির সাক্ষরের জন্য আলাদা করে পাঠানো হবে। সাক্ষর প্রদানের পর তা জারি করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘অধ্যাদেশ জারির পরবর্তী এক সপ্তাহ পর এইচএসসি-সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা সম্ভব হবে। সে হিসেবে জানুয়ারি মাসের শেষে অথবা ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম দিকে ফলাফল প্রকাশ করা সম্ভব হবে।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মক'র্তা এম এ খায়ের বলেন, ‘অধ্যাদেশ অনুমোদনের জন্য মন্ত্রিপরিষদ সভায় পাঠানো হয়েছে। এরপর প্রক্রিয়াগত কারণে আইন মন্ত্রণালয়, প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো হবে। সে জন্য ফলাফল প্রকাশে কিছুটা দেরি হতে পারে।’

এদিকে আন্ত:শিক্ষা সমন্বয়ক বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, ‘এইচএসসি’র তৈরির কাজ শেষ পর্যায়ে। অধ্যাদেশ জারি হলে পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে প্রকাশ করা সম্ভব হবে।’

প্রসঙ্গত, চলতি সপ্তাহে এইচএসসি-সমমানের ফল প্রকাশে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ঘোষণা দিলেও পরীক্ষা ছাড়া ফল প্রকাশের অধ্যাদেশ জারি করা সম্ভব না হওয়ায় তা আ'ট'কে গেছে। পরীক্ষা ছাড়া ফলাফল তৈরি অধ্যাদেশ চূড়ান্ত করতে গত ৪ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদের সভায় অনুমোদনে উঠার কথা থাকলেও সভা বাতিল হওয়ায় তা পিছিয়ে যায়।

Back to top button