চিঠি দিয়ে ডিপিইর নতুন নির্দেশ

প্রাথমিকের প্রথম থেকে পঞ্চ'ম শ্রেণির শিক্ষার্থীর মূল্যায়ন করতে চিঠি দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। সোমবার দেয়া চিঠিতে স্বাক্ষর করেন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্ম'দ মনসুরুল আলাম।

চিঠিতে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবের আগে এ বছরের ১৬ মা'র্চ পর্যন্ত বিদ্যালয়ের স্বাভাবিক পাঠদান অব্যাহত ছিলো। পরবর্তীতে করো'না পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের শিখন কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে সংসদ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতার, কমিউনিটি রেডিও এবং শিক্ষকগণ স্ব স্ব উদ্যোগে মোবাইল ফোন ও ডিজিটাল পদ্ধতিতে পাঠদান কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

এ কার্যক্রম বাস্তবায়নে শিক্ষা সংশ্লিষ্ট কর্মক'র্তারাও সম্পৃক্ত ছিলেন। চলমান প্রেক্ষাপটে শিক্ষকগণ তাদের স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মূল্যায়নের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। শিক্ষার্থীদের কিভাবে মূল্যায়ন করা এবিষয়ে মাঠ পর্যায়ে একাধিক শিক্ষক ও জে'লা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মক'র্তাদের সঙ্গে কথা বলেছে বাংলাদেশ জার্নাল।

মাগুরা জে'লা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মক'র্তা মূল্যায়ন প্রসঙ্গে বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, এযাবতকাল শিক্ষার্থীদের জন্য যে কার্যক্রম চলেছে পাশাপাশি একজন শিক্ষার্থী কোন বিষয়ে কতটা দুর্বল মূল্যায়নের মাধ্যমে তা নির্ধারণ করা হবে। এরপর পরবর্তী ক্লাসে শিক্ষার্থীদের দুর্বলতা চিহ্নিত করে উপযোগী ব্যবস্থা গ্রহণ করবে স্ব স্ব বিদ্যালয়।

Back to top button