বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির ক্ষেত্রে হতে পারে যেসব জটিলতা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার জন্য একজন শিক্ষার্থীর ২০০ নম্বরের পরীক্ষা দিতে হয়। যার মধ্যে ১২০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা এবং এসএসসি ও এইচএসসি ফলের ভিত্তিতে সংযু'ক্ত হয় আরো ৮০ নম্বর।

অ'পরদিকে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এ চ্যান্স পেতে এসএসসি বা এইচএসসির ফলাফল অ'তিরিক্ত নম্বর হিসেবে যোগ হয় না। তবে এইচএসসির সব বিষয়ে ৮০ উপর নম্বর থাকলে তবেই একজন শিক্ষার্থী ভর্তিযু'দ্ধে অংশ নিতে পারেন।

এবিষয়ে বুয়েট ছাত্র কল্যাণ পরিচালক ড. মিজানুর রহমান বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, এবার একাডেমিক কাউন্সিলের মাধ্যমে কী' পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেয়া হবে সে বিষয়ে নতুন করে সিদ্ধান্ত নিতে হতে পারে।

সারাদেশে প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আলাদা আলাদা নিয়মে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ফলে এবার বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরণের জটিলতা তৈরি হবে বলে মনে করছেন শিক্ষা বিশেষজ্ঞরা।

শিক্ষাবিদ মুনতাসির মামুন মনে করেন, যেসব শিক্ষার্থী এসএসসি থেকে এইচএসসিতে বিভাগ পরিবর্তন করেছে, তাদের ফল নির্ধারণ করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি জটিলতা তৈরি হবে। সবচেয়ে বেশি সমস্যা তৈরি হতে পারে সরকারি প্রকৌশল এবং মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি পরীক্ষায় যোগ্যতা নির্ধারণ নিয়ে।

বাংলাদেশ জার্নালকে তিনি বলেন, গুচ্ছ বা সমন্বিত পদ্ধতিতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে এ জটিলতার সমাধান সম্ভব। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, অবশ্যই দেশের নীতিনির্ধারকরা এ বিষয়ে কাজ করছে।

তবে শিক্ষাবিদ যতিন সরকার মনে করেন, এখনো এইচএসসি পরীক্ষা আয়োজনের সুযোগ ছিলো। কারণ হিসেবে জানান, একটি সিদ্ধান্তের কারণে এখন অনেক কিছু পরিবর্তন করতে হবে।

গত ৭ অক্টোবর শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছিলেন, এবার জেএসসি ও এসএসসির ফলের ভিত্তিতে এইচএসসির ফল নির্ধারণ করা হবে। এই ফলাফল যাচাই করতে একটি পরাম'র্শক কমিটি গঠন করা হবে বলেও তিনি জানান।

এই পরাম'র্শক কমিটির সদস্য ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক জিয়াউল হক এ বিষয়ে বলেন, কোন নীতি অনুসরণ করে ফলাফল নির্ধারিত হবে সে বিষয়ে কোন ধরণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

তবে তিনি বলেন, কী'ভাবে জেএসসি পরীক্ষা ও এসএসসি পরীক্ষার বিষয়গুলো যু'ক্ত করে এইচএসসির বিষয়গুলোর সাথে সম্পৃক্ত করা যায়, তা নিয়ে পরাম'র্শক কমিটির পাশাপাশি আমাদের নিজস্ব টেকনিক্যাল কমিটিও কাজ করছে।

তিনি জানান, এসএসসি থেকে এইচএসসিতে যেসব শিক্ষার্থী বিভাগ পরিবর্তন করেছে, তাদের বিষয়টিও পর্যালোচনা করছে কমিটি।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালক ড. কামাল হোসেন বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, গতবছর সারাদেশের কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আমাদের পরীকল্পনায় দেশের প্রযু'ক্তি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনের পরিকল্পনা ছিল। তবে মনে রাখতে হবে তখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক ছিলো। যেহেতু এখনো করো'না সংক্রমণ হচ্ছে তাই এই মুহূর্তে কোন সিদ্ধান্ত নেয়নি ইউজিসি। পরিস্থিতি বিবেচনা করে তবেই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

Back to top button