ক’রো’নার মধ্যে এইচ’এসসি পরী’ক্ষা না নেয়া’র দাবি শি’ক্ষার্থী’দের

প্রা’ণঘা’তী ক’রো’নাভাই’রাস পরিস্থিতির মধ্যে চলতি বছরের এইচএসসি ও স’মমানে’র পরী’ক্ষার না নেয়ার দাবি জানি’য়েছে শিক্ষার্থীরা। এজন্য তারা সামা’জিক যো’গাযোগ’মাধ্যম ফেসবুকে ‘করো’নার মধ্যে এইচএসসি নয়’ নামে একটি গ্রু’প খুলেছে।

সেখানে তারা প’রীক্ষা না নেয়ার পক্ষে তা’দের যু’ক্তি তু’লে ধরে মতাম’ত প্র’কাশ করছেন। নাম প্রকা’শে অনিচ্ছুক এক এইচ’এসসি পরী’ক্ষার্থী বলেন, প্রধানম’ন্ত্রী বলেছেন ক’রো’নাভাই’রাস পরি’স্থিতি স্বাভা’বি’ক না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষা’প্র’তিষ্ঠান ব’ন্ধ থা’কবে। কিন্তু এখন পর্যন্ত এ ভাই’রাসের প্রকোপ রয়ে গেছে। প্রতি’দিন নতুন ন’তুন শ’না’ক্ত হচ্ছে। প্রতিদিন ৩০-৪০ জ’নের মৃ’ত্যু’ হচ্ছে।

এ পরীক্ষার্থীর মতে, এসময়ে এইচ’এসসি নেয়ার কথা শিক্ষা মন্ত্রণালয় কী'’ভাবে ভাবছে সেটা’ইতো বুঝতে পা’রছি না। আ’ন্দাজে কিছু না বলে প্রধা’নম’ন্ত্রীর মতো সো’জা কথা বলে দিলেই তো হয়; করো’না’ভাই’রাস চলে গেলে পরী’ক্ষা নেয়া হবে।

তাদের ফেসবুক গ্রু’পের ডেস’ক্রিপ’শনে বলা হয়েছে, আমাদের এই আ’ন্দো’লন সফল করতে আপনা’দের সকলের সম্মিলিত সহ’যো’গিতা দরকার। তাই এই আ’ন্দো’লনকে বেগবান করতে আপনাদের ফ্রেন্ডলিস্টের সকল ব’ন্ধুদের ইন’ভাইট দিয়ে গ্রুপে এ্যাড ক’রে নি’বেন। যাতে ক’রে শিক্ষা মন্ত্র’নালয় এবং ঊর্ধ্ব’তন’দের নিকট আমা’দের আ’ন্দোলন দৃ’ষ্টিগো’চর হয়।

পরী’ক্ষার্থীরা’ বলেন, ক’রো’নাভাই’রাসের শুরুর দিকে লক্ষণ প্রকাশ পায় না। আবার অ’নেকে উপসর্গহী’নভাবেও এই ভাই’রাসে আ’ক্রান্ত হচ্ছে। তাহলে যদি কো’নো পরীক্ষা’র্থী এমন অ’বস্থায় থাকে তবে তার জন্য অ’ন্যরাও আ’ক্রা’ন্ত হতে পারে। আবার কেউ যদি আ’ক্রান্ত হয়ে থাকে তবুও তো সে পরী’ক্ষা দিতে যাবে। সেও তো চাইবে না তার একটি বছ’র নষ্ট হোক।

তারা বলেন, পরী’ক্ষার সময় ‘ক’রো’না ধ’রা পড়’লে কি হবে? এতে যদি কেউ মা’রা’ যায় তবে যারা পরী’ক্ষা নেয়ার এতো প্রস্তু’তি নিচ্ছে তারা তো প্রা’ণ ফিরিয়ে দিতে পারবে না। আম’রা বেঁচে গেলেও আমাদের থেকে যদি পরিবা’রের ব’য়স্করা’ করো’নায় আ’ক্রা’ন্ত হয় তা’হলে তো তা’দের মৃ’ত্যু’ ঝু’কি আ’রো বেশি।

এদিকে, এইচএসসি প’রীক্ষার বিষ’য়ে এখনও চূড়া’ন্ত সি’দ্ধা’ন্ত হয়’নি বলে জা’নিয়ে আজ সোম’বার শি’ক্ষা মন্ত্র’ণালয়ের মা”ধ্যমিক ও উচ্চ শি’ক্ষা বি’ভাগে’র সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, কো’নো সিদ্ধা’ন্ত হলে সবাইকে তা আনু’ষ্ঠানিক’ভাবে জা’নিয়ে দেওয়া হবে। আর শিক্ষা প্র’তিষ্ঠা’ন খু’লছে কি না, তা ‘হবে ২৫ অগাস্টের পর।

Back to top button