ছে'লেকে জে'ল থেকে বার করতে ৩৫ ফুটের সুড়ঙ্গ খুঁড়ে ফেললেন মহিলা, শেষে কী' হল দেখু'ন

জে'ল ভেঙে ব'ন্দি পালানো নিয়ে বিশ্বে প্রচুর সিনেমা তৈরি হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে এক মা যা করলেন, তা সেই সব ছবির চিত্রনাট্যের থেকে কম কিছু নয়। সেই মা তাঁর ছে'লেকে জে'ল থেকে বের করে আনার জন্য বিশাল বড় এক সুড়ঙ্গ খুঁড়ে ফেললেন।

ইউক্রেনের এক যুবক খু'নের দায়ে যাব'জ্জীবন কারাদ'ণ্ডে দ'ণ্ডিত হন। জ্যাপোরিঝিয়া এলাকার এক জে'লে তাঁকে পাঠানো হয়। কিন্তু তাঁর বছর একান্নর মা, যে কোনও মূল্যে ছে'লেকে জে'ল থেকে বের করে আনার পণ করেন।কিন্তু আইনি পথে তা সম্ভব না হওয়ায়, তাই ‘ঘুর পথে’ জে'ল থেকে ছে'লেকে বের করে আনার পরিকল্পনা করেন ওই মহিলা। মহিলা তাঁর ছে'লেকে জে'ল থেকে বের করার জন্য বেশ আটঘাট বেঁধেই মাঠে নামেন।

ছে'লে যে জে'লে ব'ন্দি ছিলেন, তার কাছে একটি বাড়িতে ভাড়া থাকা শুরু করেন তিনি। সেই সঙ্গে মাটি খোঁড়ার জন্য বেলচা ও অন্যান্য যন্ত্র যোগাড় করেন এবং জে'লের পাশে একটি মাঠ থেকে সুড়ঙ্গ খোঁড়ার পরিকল্পনা করেন।রোজা রাত্রে তিনি ভাড়া বাড়ি থেকে ওই মাঠের কাছে যেতেন। আশপাশের কেউ যাতে বুঝতে না পারেন, সে জন্য তিনি শব্দ হয় না এমন একটি স্কুটার জোগাড় করেন।

রাত্রে সেই স্কুটার চালিয়ে পৌঁছে যেতেন মাঠে, শুরু করতেন সুড়ঙ্গ খোঁড়ার কাজ। প্রতিদিন একটু একটু করে মাটি খুঁড়ে প্রায় ৩৫ ফুট সুড়ঙ্গ খুঁড়ে ফেলেন ওই মহিলা। প্রায় জে'লের ভিতর পৌঁছেও গিয়েছিল ওই সুড়ঙ্গ।কিন্তু ছে'লেকে বের করে আনার আগেই ওই মহিলার পরিকল্পনা ধরে ফেলেন জে'ল কর্তৃপক্ষ। ধ'রা পড়ার পরে যা হওয়ার তাই হয়, ওই মহিলাকেও জে'লের সাজা শোনায় আ'দালত।

Back to top button