বিমান যাত্রীর জীবনের শেষ স্ট্যাটাসে কাঁদল বিশ্ববাসী

ইন্দোনেশিয়ায় সাগরে বি’ধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্সের অবস্থান শনাক্ত হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ব্ল্যাক বক্সের ওই এলাকাতেই বিমানটির সন্ধান পাওয়া যাবে। এখনো বি’ধ্বস্ত বিমানটির আরোহীদের খুঁজতে অ’ভিযান চালিয়ে যাচ্ছেন উ’দ্ধারকর্মীরা।

৬২ আরোহীকে খুঁজতে এখন কাজ করছেন ২ হাজার ৬০০ কর্মী। তবে কোনো আরোহীর জীবিত থাকার সম্ভাবনা একেবারেই ক্ষীণ।জাভা সাগরে ইন্দোনেশিয়ার বি’ধ্বস্ত উড়োজাহাজ বোয়িং ৭৩৭-৫০০ এর ব্ল্যাক বক্সের সন্ধান পাওয়া গেছে।

দ্রুত সেটি পুনরুদ্ধার করার কথা জানিয়েছেন দেশটির সাম’রিক প্রধান জাহ’জান্তো। অ’পরদিকে বি’ধ্বস্ত বিমানের যাত্রীদের জন্য পরিবারের আহাজারি থামছেই না। সম্প্রতি রাইথ উইনদানিয়া নামে এক যাত্রীর ইন্সটাগ্রামের পোস্ট ভাই’রাল হয়েছে।

দুই সন্তান নিয়ে বিমানে ওঠার পর ইন্সটাগ্রামে তার দুই সন্তানকে নিয়ে হাস্যোজ্জল পোস্ট দেন। ক্যাপশনে তিনি লেখেন ‘বাই বাই ফ্যামিলি, আম’রা এখন বাড়ি যাচ্ছি।’ ছবি পোস্ট করার কয়েক মিনিট পরই সমুদ্রে বি’ধ্বস্ত হয় তাদের বহনকারী বিমানটি।

রাইথের ভাই ইরফানসিয়াহ রিয়্যান্তো তার বোনের পরিবারের একটি ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে লিখেছেন: ‘আমাদের জন্য প্রার্থনা করুন।’এদিকে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, বিমানের সন্ধান না মিললেও সাগরের এখানে-সেখানে ভেসে উঠছে দেহাবশেষ, জামাকাপড় ও লাইফ জ্যাকেটসহ নানা জিনিসপত্র। হেলিকপ্টার ও জলযান নিয়ে উ’দ্ধার অ’ভিযান চালাচ্ছেন কর্মীরা। অনেক মৃ’তদেহের খণ্ডিত অংশ মিলেছে।

Back to top button