‘লকডাউনে থামবে না নতুন করো'না’

করো'না মোকাবিলায় বিশ্বজুড়ে চলছে ভ্যাকসিন কর্মসূচি। এর মধ্যেই ডিসেম্বরের শেষ দিকে ব্রিটেনে ধ'রা পড়ে করো'নাভাই'রাসের নতুন ধরন। পরবর্তী তিন সপ্তাহে তা শনাক্ত হয়েছে বিশ্বের কয়েক ডজন দেশে।

করো'নার নতুন ধরন ঠেকাতে কয়েকটি দেশ লকডাউনে চলে গেছে। আরও কিছু দেশ লকডাউন আরোপ করবে বলে চিন্তা করছে। তবে লকডাউন দিয়ে এবার সংক্রমন কমানো সম্ভব হবে না বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

এরইমধ্যে চতুর্থ ধাপের বিধিনিষেধ কার্যকর হয়েছে ব্রিটেনে। আর জার্মানিতে আগামী ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে লকডাউনের সময়সীমা। ভাই'রাসটির সংক্রমণ রুখতে চলতি সপ্তাহে নতুন করে ছয় সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করেন ব্রিটিশ সরকার।

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের বার্তা, মিউট্যান্ট ভাই'রাসকে বাগে আনতেই এই পদক্ষেপ। সেই সঙ্গে দেশবাসীকে নতুন করে ঘরব'ন্দি হতে বলেন তিনি।তবে, বিশ্লেষকরা বলছেন, লকডাউন দিয়ে এবার সংক্রমণ কমিয়ে আনা সম্ভব হবে না। কারণ হিসাবে তারা বলছেন, করো'নার নতুন যে প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে তা আগের করো'নার চেয়ে কয়েকগুণ সংক্রমণপ্রবণ।

এটা আগের চেয়ে ৫০ থেকে ৭০ শতাংশ দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে। ফলে এর নিয়ন্ত্রণে শুধু লকডাউনই যথেষ্ট হবে, তেমন গ্যারান্টি নেই।বর্তমানে ভাই'রাসটিকে বহুরূপী হিসাবে অ'ভিহিত করা হচ্ছে। এর মোকাবেলায় ইতোমধ্যে চালু হওয়া ভ্যাকসিন কার্যকর নাও হতে পারে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিজ্ঞানীরা।

Back to top button