হু হু করে কমে চলেছে স্বর্ণের দাম হু'ম'রি খাচ্ছে ক্রেতারা

বিশ্ব বাজারে অন্যান্য মূল্যবান ধাতুর মধ্যে রুপোর দাম ০.১ শতাংশ হ্রাস পেয়ে দাঁড়িয়েছে ২৪.৭৪ মা'র্কিন ডলার। প্রত্যেক আউন্স ৯২৫.৫০ মা'র্কিন ডলারে দাঁড়িয়ে আছে প্লা'টিনাম। এছাড়াও প্যালাডিয়ামের দাম ০.৪ শতাংশ হ্রাস পেয়ে দাঁড়িয়েছে ২,৩২৩.৩০ মা'র্কিন ডলার।

সোনা এবং রুপোর দামের ওঠা নামা ভা'রতের বাজারেও অব্যাহত। গত সপ্তাহে কিছুটা দাম কমলেও সেই ধাক্কা সামলে মঙ্গলবার দিন ভা'রতীয় বাজারে আবার ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছে এই দুটি ধাতু। এইদিন সকালবেলায় ভা'রতের মাল্টি-কমোডিটি এক্সচেঞ্জে বা এম সি এক্সে সোনার ডিসেম্বররের ফিউচার মূল্য প্রায় ০.০৫ % বৃদ্ধি

পেয়েছে। এর ফলে প্রত্যেক ১০ গ্রাম সোনার দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০, ৮৫৬ টাকা। এম সি এক্স-এ আগের দিন ছুটি থাকায় শুধুমাত্র বিকেলের দিকে বেচাকেনা হয়েছে। সেই দিন সোনালি ধাতুর দাম ০.২ শতাংশ নেমেছিল। আজকের দিনে এই দাম প্রায় ৫,৮০০ টাকা হ্রাস পেয়েছে।

এই করো'না মহামা'রী সময়ে আনলক শুরু হওয়ার সময়ে নিরাপদ লগ্নির জন্য নেটিজেনদের নজরে পড়ে সোনার চাহিদা বেড়ে গিয়েছিল। এখন এই মা'রণ ভাই'রাসের ভ্যাক্সিন আবিষ্কার এর খবর বেড় হওয়ার পর থেকে এই প্রবনতা কমে গিয়েছে।

শুধু ভা'রতের মতো তৃতীয় বিশ্বের দেশগু'লিতেই নয় বিশ্বের প্রায় অন্যান্য দেশগু'লিতেও প্রায় একই দৃশ্য দেখা গেছে। এর ফলে আগের সপ্তাহে ভা'রতে মাল্টি-কমোডিটি এক্সচেঞ্জে প্রতি কিলোগ্রাম সোনার দাম কমে হয়েছে ১ হাজার ২০০ টাকা। আজ আরও হ্রাস পেয়েছে সোনার দাম।

বিশ্ব বাজারে এইদিন সোনার দাম ছিল উপরের দিকে। সারা বিশ্বে আশার আলো দেখিয়ে ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা Moderna করো'নার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের কথা ঘোষণা করেছে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে এই মা'রণ ভাই'রাস প্রতিরোধে ৯৪.৫ শতাংশ কার্যকরী প্রমাণিত হয়েছে বলে দাবি করেছে ম'দেরনা নামক এই সংস্থা।মা'র্কিন যু'ক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপে সংক্রমণের ঢেউ ঘিরে

প্রবল উদ্বেগের মধ্যে নয়া কোভিড ভ্যাকসিন আবিষ্কারের খবর লগ্নিকারীদের সম্পূর্ণ আশ্বস্ত করতে পারেনি। এর ফলে বিশ্ব বাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১,৮৯০.৪৩ মা'র্কিন ডলার।সোনার মূল্যবৃদ্ধিতে সহায়তার ভূমিকা গ্রহন করেছে মা'র্কিন ডলার। ডলারের সূচক ০.১৭ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৯২.৪৭৭। ফলে অন্য মুদ্রা ব্যবহারকারীদের কাছে সোনার দর হয়ে উঠেছে অনেকটাই সস্তা।

Back to top button