র‌্যা'­ব সদস্যের করো'না শনাক্ত, ১৫টি বাড়ি ও দোকান লকডাউন

ঢাকায় টেকনাফফেরত এক র‌্যা'­ব সদস্যের করো'না পজেটিভ পাওয়া গেছে। এ অবস্থায় তার সংস্প'র্শে আসা টেকনাফের ১৫টি বাড়ি ও দোকান লকডাউন করেছে উপজে'লা প্রশাসন। এর মধ্যে রয়েছে সাতটি দোকান ও আটটি বাড়ি। করো'না শনাক্ত র‌্যা'­ব সদস্যের শ্বশুরবাড়ি টেকনাফে। কিছুদিন আগে তিনি এখানে বেড়াতে এসেছিলেন, পরে ঢাকায় তার করো'না শনাক্ত হয়। শুক্রবার (৩ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টার দিকে টেকনাফ পুরাতন পল্লান পাড়ায় বাড়ি ও দোকানগুলো লকডাউন করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন টেকনাফের উপজে'লা নির্বাহী কর্মক'র্তা (ইউএনও) মো. সাইফুল ইস'লাম। তিনি বলেন, ‘ঢাকায় করো'না শনাক্ত র‌্যা'­ব সদস্যের শ্বশুরবাড়ি টেকনাফে। কিছু দিন আগে তিনি এখান থেকে ফিরে যাওয়ার ঢাকায় তার করো'না শনাক্ত হয়। ফলে তার সংস্প'র্শে আসা ১৫টি বাড়ি ও দোকান লকডাউন ঘোষণা করা হয়।

জানা গেছে, ওই র‌্যা'­ব সদস্য কয়েকদিন আগে টেকনাফ পৌরসভা'র পুরাতন পল্লান পাড়ায় শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে আসেন। এরপর গত ২৬ মা'র্চ তিনি ঢাকায় ফেরেন। তিনি ঢাকায় সর্দি, জ্বর ও কাশিতে আ'ক্রান্ত হন। পরে ৩ এপ্রিল ঢাকায় পরীক্ষা করলে তার শরীরে কোভিড-১৯ পজেটিভ পাওয়া যায়। পরে তাকে আইসোলেশনে নেওয়া হয়। এরই সূত্র ধরে শুক্রবার রাতেই টেকনাফ উপজে'লা নির্বাহী কর্মক'র্তা মো. সাইফুল ইস'লাম, টেকনাফ মডেল থা'নার ওসি প্রদীপ কুমা'র দাশ, টেকনাফ উপজে'লা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মক'র্তা ডা. টিটু চন্দ্র শীলের নেতৃত্বে একটি টিম র‌্যা'­ব সদস্যের শ্বশুরবাড়ি এলাকার বাড়ি ও দোকান লকডাউন ঘোষণা করেন।

Back to top button