তিনিই যে বলিউড বাদশা দান করে আবারও বুজিয়ে দিলেন শাহরুখ

প্রা'ণঘাতী করো'না ভাই'রাসের মোকাবিলায় গোটা বলিউড যখন ত্রাণ তহবিল গুলোতে সাধ্যমতো সাহায্য করছেন, তখন এমন কঠিন পরিস্থিতিতে কিং খান চুপ কেন? হাতে সিনেমা নেই বলে কি, সামাজিক দায়িত্ব থেকেও মুখ ফিরিয়েছেন?… এজন অজস্র বাঁকা কথা শুনতে হয়েছে তাঁকে। তবে এবার তিনি সব সমালোচনার জবাব দিলেন।

এদিকে দিল্লি-পশ্চিমবঙ্গের মতো একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে তো অর্থসাহায্য করলেনই, উপরন্তু দুস্থ-প্রান্তিক মানুষদের মুখেও খাবার তুলে দেওয়ার জোগাড় করলেন। এক কথায়, শাহরুখ খান যা করলেন, অ'ভিনেতা সত্ত্বার বাইরে গিয়েও দেশবাসী তাঁর এই মানবিক উদ্যোগের জন্য চিরকাল তাঁকে মনে রাখবে। আর এই জন্যই বোধহয় হাতে কাজ না সত্ত্বেও তিনি বুঝিয়ে দিলেন যে বলিউডের বাদশা এখনও তিনিই রয়ে গিয়েছেন। এমনটাই মত নেটিজেনদের একাংশের।

একনজরে শাহরুখ খান যা করলেন। শাহরুখ খান তার ক্রিকেট টিম নাইট রাইডার্স ও প্রযোজনা সংস্থা রেড চিলিজের হয়ে পিএম এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী আর বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে মোটা অঙ্কের টাকা দিচ্ছেন।

এছাড়াও শাহরুখের ‘মীর ফাউন্ডেশন’ পক্ষ থেকে ৫০ হাজার পিপিই কিট দিচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গ আর মহারাষ্ট্রের হাসপাতালগুলোতে। উপরন্তু আলাদা করে আরও অর্থ সাহায্যের ব্যবস্থা করেছেন যাতে আগামী দিনগু'লিতে বাংলাও মহারাষ্ট্রের হাসপাতালগু'লিতে যাতে তাদের ভেন্টিলেটরেরও আকাল না হয়।

এছাড়াও ‘এক সাথ’ নামের একটি সংস্থার সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে মীর ফাউন্ডেশন করো'নার জেরে বেকার হয়ে যাওয়া মুম্বাইয়ের প্রায় সাড়ে ৫ হাজার দিন আনি দিন খাই পরিবারকে রোজ দু বেলা খাওয়ানোর দায়িত্ব তুলে নিয়েছে। অন্তত একমাস খাদ্য সরবরাহ করা হবে তাঁদের। উপরন্তু ২ হাজার প্লেট খাবার রোজ পৌঁছে যাবে হাসপাতাল আর জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যু'ক্ত মানুষদের কাছে। যার সমস্ত ব্যায়ভা'র বহন করবেন শাহরুখ খান নিজে।

এখানেই শেষ নয়! মুম্বাই পু'লিশের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে তাঁর সংস্থা রোজ ৩ লাখ খাবারের প্যাকেট বিলি করবে ভবঘুরে আর ভিক্ষুকদের মধ্যে। যাতে রাতে অভুক্ত থেকে যেন কাউকে ঘুমোতে যেতে না হয়!

এছাড়াও দিল্লির ২৫০০ দিন মজুরদের পরিবারগু'লিতে প্রতি সপ্তাহে অন্তত আগামী ১ মাস বিনামূল্যে রেশন বিলি করার দায়িত্ব নিয়েছেন শাহরুখ৷

Back to top button