ইতালিতে হাঁচি দিতে দিতে বাংলাদেশি যুবকের মৃ’ত্যু

কর্মস্থল থেকে বাসায় ফিরে বসা অবস্থায় হাঁচি দিতে থাকেন বাংলাদেশি প্রবাসী। এরইমধ্যে গুরুতর অ’সুস্থ হয়ে মুহূর্তেই মৃ’ত্যু হয় তার।

ঘটনাটি ঘটেছে ইতালির জেনোভা শহরে রোববার স্থানীয় সময় রাত ১১টায়। অ’জ্ঞাত কারণে হঠাৎ মা’রা যাওয়া ওই বাংলাদেশি নাগরিকের নাম – সেন্টু খলিফা।

তার বয়স আনুমানিক ২৫ বছর। তিনি শ’রীয়তপুর জে'লার ভুমখারা গ্রামের শাহ'জাহান খলিফার ছেলে। এ বিষয়টি নিয়ে বেশ কৌতূহলের জন্ম দিয়েছে তার পরিচিতজনদের মাঝে।

এ বিষয়ে সেন্টুর প্রতিবেশি সেলিম দেওয়ান বলেন, ‘আমি প্রতি সপ্তাহে তার দোকানে আসা-যাওয়া করতাম। রোববার রাতে দোকান ব’ন্ধ করে বাসায় ফেরেন সেন্টু।

এরপর বসা অবস্থায় হাঁচি দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে তিনি গুরুতর অ’সুস্থ পড়েন। এরপর তাৎ’ক্ষণিক পু’লিশ ও অ্যাম্বুলেন্স এসে পরীক্ষা করে দেখেন তিনি মা’রা গেছেন।’

জানা গেছে, কী'ভাবে সেন্টুর মৃ’ত্যু হয়েছে তা খতিয়ে দেখছেন জেনোভার চিকিৎসকরা। এ বিষয়ে সেলিম বলেন, ‘সেন্টুর শ্বা'সক’ষ্ট আগে থেকেই ছিল।

তার মৃ’ত্যুর ল’ক্ষণ অনেকটা করোনাভাইরাসে আ’ক্রান্তের মতো। তবে তিনি করোনাভাইরাসে আ’ক্রান্ত হয়ে মা’রা গেছেন কিনা তা নিশ্চিত নই আম'রা।

তার মৃ’ত্যু র’হস্য জানতে ম’রদেহ হাসপাতালে নিয়ে গেছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা।’ সেন্টু দীর্ঘ নয় বছর ধরে ইতালিতে বসবাস করছেন। তার অকাল মৃ’ত্যুতে ইতালি প্রবাসীদের মধ্যে শো’কের ছায়া নেমে এসেছে।

Back to top button