পিপিই ও কিট কেনাকা'টায় দু'র্নীতি, জিম্বাবুয়ের স্বাস্থ্যমন্ত্রী গ্রে'ফতার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করো'না পরিস্থিতির মধ্যে জিম্বাবুয়ের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওবাদিয়াহ মোয়োকে গ্রে'ফতার করেছে দেশটির দু'র্নীতি দমন সংস্থা।

মহামা'রী মোকাবিলায় স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই) কেনাকা'টায় দু'র্নীতির অ'ভিযোগ আনা হয়েছে তার বি'রুদ্ধে।

আলজাজিরা জানায়, শুক্রবার গ্রে'ফতার করে তাকে হারারের একটি থা'নায় সোপর্দ করা হয়েছে। শনিবার তাকে আ'দালতে তোলা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জন ম্যাকামুর নামে জিম্বাবুয়ের দু'র্নীতি দমন কমিশনের এক মুখপাত্র ওবাদিয়াহ মোয়োকে গ্রে'ফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, আমি নিশ্চিত করছি যে স্বাস্থ্য ও শি'শু কল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রীকে গ্রে'ফতার করা হয়েছে এবং তাকে রোডেসভিলে থা'নায় রাখা হয়েছে।

তার বি'রুদ্ধে কভিড-১৯ মোকাবিলায় স্বাস্থ্য সামগ্রী সংগ্রহে অনিয়মের অ'ভিযোগ আনা হয়েছে বলে ওই কর্মক'র্তা জানান।

এদিকে জিম্বাবুয়ে সরকার এই গ্রে'ফতারের ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেনি।

করো'নাভাই'রাস রোধে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই) সংগ্রহে ২০ লাখ ডলারের দু'র্নীতির অ'ভিযোগ আনে দেশটির প্রধান বিরোধী দল। এরপরই স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওবাদিয়াকে গ্রে'ফতার করে দু'র্নীতি দমন কমিশন।

মাত্র দুই মাস আগে প্রতিষ্ঠিত হওয়া ড্রাক্স কনসাল্ট এসএজিএল নামে নতুন একটি কোম্পানিকে পিপিইসহ করো'না চিকিৎসার ওষুধ ও টেস্ট কিট সরবরাহের কাজ দেয় সরকার। এই ঘটনায় দু'র্নীতির অ'ভিযোগে হারারেতে প্রতিবাদের ঝড় উঠে।

সরকারি কেনাকা'টা এই ধরনের চুক্তির জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই ওই কোম্পানিকে কাজ দেয়া হয়।

এদিকে আফ্রিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত প্রায় ৪৮০ জন করো'নায় আ'ক্রান্ত হয়েছেন, এর মধ্যে মা'রা গেছেন মাত্র ৪ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৪ জন।

Back to top button