কাজের লোকদের হাত ধরে সুশান্তর মৃ'ত্যু ত'দন্তে নতুন মোড়

সুশান্ত সিং রাজপুত আত্মহ'ত্যা করেছেন। এই ঘটনার পর পাঁচদিন কে'টে গেলেও তার মৃ'ত্যু নিয়ে ধোঁয়াশা কাটেনি। কেন তিনি আত্মঘাতী হলেন, সেই র'হস্য এখনও অজানা।

র'হস্য উদঘাটনে চলছে পু'লিশি ত'দন্ত। সেই জেরেই পু'লিশের হাতে এল এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা গেল, ঘটনার তিন দিন আগে বাড়ির সমস্ত কাজের লোকের বেতন মিটিয়ে দিয়েছিলেন সুশান্ত। বলেছিলেন, এটাই শেষবার। আর কখনো তাদের বেতন দেওয়া হবে না।

সুশান্ত সিং রাজপুতের সেই কথা এখন তাড়া করে বেড়াচ্ছে কাজের লোকদের। তাদের আক্ষেপ, তখন যদি বুঝতে পারতেন সুশান্তের দিকে বাড়তি খেয়াল রাখতেন। তাকে এভাবে ম'রতে দিতেন না।

তারা ভেবেছিলেন, লকডাউনের মধ্যে কাজের টানাটানি। তাই হয়তো এমন কথা বলছেন অ'ভিনেতা। তাই তখন তারা বলেছিলেন, দুর্দিনে যেভাবে সুশান্ত তাদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন, তাতে তাদের আর বেশি কিছু চাই না। কোনো মতে লকডাউনের সময়টা কাটিয়ে দেবেন তারা। কিন্তু একবারের জন্যও বুঝতে পারেননি, ‘এই শেষবার’ মানে সত্যিই শেষবার। আর কোনোদিন সুশান্তের সঙ্গে দেখাও হবে না তাদের।

কাজের লোকদের এই জবানব'ন্দি নিশ্চিত করে সুশান্ত বেশ সময় নিয়েই আত্মহ'ত্যার দিকে এগিয়ে গেছেন।

অ'ভিনেতার আত্মহ'ত্যার পরদিনই মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ আশ্বা'স দিয়েছিলেন যে সুশান্তের মৃ'ত্যু নিয়ে যথাযথ ত'দন্ত হবে। প্রয়োজনে অ'ভিযোগের ভিত্তিতে খতিয়ে দেখা হবে যে, পেশাগত বিদ্বেষই অ'ভিনেতাকে এমন চরম সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য করেছে কিনা!

এদিকে মহারাষ্ট্র পু'লিশের ত'দন্ত এখনও জারি। পু'লিশি ত'দন্তে এখনও কিছু প্রমাণিত না হলেও অ'ভিনেতার আত্মহ'ত্যার জন্য ইতিমধ্যেই বলিউডের ৪ তারকার বি'রুদ্ধে ‘নেপোটিজম’ কিংবা স্বজনপ্রীতির অ'ভিযোগ তুলে মা'মলা দায়ের হয়েছে মুজাফফরপুর আ'দালতে।

ইন্ডাস্ট্রির ৫ প্রযোজনা সংস্থাকেও আইনি নোটিস পাঠাতে চলেছে মুম্বাই পু'লিশ। তবে কোন কোন প্রযোজককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে, তা এখনও জানানো হয়নি।

Back to top button