কবে অবসরে যাবেন, জবাবে যা জানালেন মাশরাফি

আরও ১০ বছর আগেই ক্যারিয়ারে সমাপ্তি টানতে পারতেন বাংলাদেশ জাতীয় ওয়ানডে দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

অন্য কোনো ক্রিকেটার হলে হয়তো তাই করতেন।

কিন্তু বারবার অ'স্ত্রোপচার করে দুই পায়ের ইন'জুরিকে কোনোমতে সামাল দিয়েই খেলা চালিয়ে গেছেন মাশরাফি। অধিনায়কত্ব করেছেন লাল-সবুজ জার্সির। ৫০ ওয়ানডে জয়ের সাফল্যগাঁথা লিখেছেন।

এখনও থামেনি মাশরাফির পথচলা। নেতৃত্ব ছাড়লেও খেলা চালিয়ে যাওয়ার কথা বলেছেন মাশরাফি। তিনি কবে অবসরে যাবেন সে প্রশ্ন এখন ক্রীড়ামোদিদের মনে।

এবার সে বিষয়টিই স্পষ্ট করলেন মাশরাফি।

সম্প্রতি ক্রীড়াবিষয়ক সংবাদমাধ্যম ক্রিকবাজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, আমা'র ক্যারিয়ারের কোনো সিদ্ধান্ত অন্যের পরাম'র্শে নিইনি। সে জন্য আমি গর্বিত। হুট করেই ক্যারিয়ারের সমাপ্তি টানতে পারি।

ক্যারিয়ারের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তগুলো হুট করে নিয়েছেন বলে উদাহ'রণও দেন মাশরাফি।

হুটহাট করেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি থেকে সরে গেছেন। এবার অধিনায়কত্বও ছেড়ে দিয়েছেন। পরিস্থিতির বিবেচনায় এভাবেই খেলাও ছেড়ে দেবেন হঠাৎ করেই।

মাশরাফি বলেন, আমি গর্বিত যে, এভাবেই আমি সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছি। এসব বিষয়ে আমি শুধু আমা'র পরিবারকে জানিয়েছি, আমা'র সতীর্থদের বলেছি। কিন্তু কোনো কোচকে কখনও বলে এসব সিদ্ধান্ত নিইনি।

তবে এখনও ক্রিকেট খেলতে চান বলে জানালেন মাশরাফি।

তিনি বলেন, শত ব্যস্ততার মধ্যে ক্রিকেট'কে চালিয়ে নিয়ে যেতে চাই। কিন্তু সকালে ঘুম থেকে উঠে যদি মনে হয়, আর ভালো লাগছে না, তবে অবসর নিয়ে নিতে পারি।

মাশরাফি জানান, ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচে অবসর নিয়ে নিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পরে তার জন্য বিদায়ী ম্যাচ আয়োজনের তোড়জোড় তাকে বিব্রত করেছে।

Back to top button